Free Porn
xbporn

buy twitter followers
uk escorts escort
liverpool escort
buy instagram followers
Wednesday, July 24, 2024
HomeScrollingঅতি বিপজ্জনক হারিকেন বেরিলে বারবাডোজে আটকা বিশ্বকাপজয়ী ভারত

অতি বিপজ্জনক হারিকেন বেরিলে বারবাডোজে আটকা বিশ্বকাপজয়ী ভারত

দীর্ঘ ১৭ বছর পর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারত। বারবাডোজে চোকার্সখ্যাত দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৭ রানে হারিয়েছে হয়েছে রোহিত-কোহলিরা। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের মুকুট মাথায় নিতেই ভেন্যু ও হিল্টন হোটেলে ক্রিকেটারদের আনন্দঘন মুহূর্তে দুঃসংবাদ হয়ে এলো ঘূর্ণিঝড় প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ও হারিকেন বেরিল।

মনভাঙা দক্ষিণ আফ্রিকা বেরিল শুরু হওয়ার আগেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছেড়েছে। কিন্তু আটকা পড়েছে রোহিত শর্মা বাহিনী। চার্টার্ড ফ্লাইটে তাদেরও দেশের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা ছিল। ঘূর্ণিঝড়টি স্থানীয় সময় রোববার (৩০ জুন) রাতে বারবাডোজের ওপর দিয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যে কারণ বিকেলে বিমানবন্দর বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ক্রিকইনফোর খবরে ঝড়টির বর্তমান অবস্থান বলা হয়েছে বারবাডোজের দক্ষিণ উপকূল থেকে ৮০ মাইল দূরে।

বারবাডোজে ভারতের ক্রিকেটার ও স্টাফদের পাশাপাশি আছেন বোর্ড সচিব জয় শাহও। তিনি বলেছেন, ‘আপনাদের মতো আমরাও আটকা পড়েছি। দেশে ফেরার বিষয়ে পরিষ্কার হতে পারলেই আমরা অভিনন্দন (চ্যাম্পিয়নদের) জানানোর ব্যাপারটি নিয়ে চিন্তা করব।’

এদিকে ক্রমেই শক্তিশালী হয়ে উঠেছে ঘূর্ণিঝড় ‘বেরিল’। ইতোমধ্যে ক্যাটাগরি ৪-এ পৌঁছানো ঘূর্ণিঝড়টিকে ‘অত্যন্ত বিপজ্জনক’ বলে অভিহিত করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

কলোরাডো স্টেট ইউনিভার্সিটির ঘূর্ণিঝড়-বিষয়ক গবেষক ফিলিপ ক্লটজবাচের মতে, স্থানীয় সময় রোববার (৩০ জুন) সকালে ক্যাটাগরি ৩ হারিকেনে রূপ নিয়ে ‘রেকর্ড’ (জুন মাসে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়ের হিসেবে) গড়ে বেরিল।

স্যাম লিলো নামে আরেক বিশেষজ্ঞের মতে— গ্রীষ্মমন্ডলীয় নিম্নচাপ থেকে বড় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে বেরিলের লেগেছে মাত্র ৪২ ঘণ্টা। আর আটলান্টিক মহাসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়ের ইতিহাসে এর আগে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে মাত্রা ছয়বার।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন বলছে, ‘বেরিল’ এখন পর্যন্ত আটলান্টিক মহাসাগরে রেকর্ড করা প্রথম এবং জুনমাসে রেকর্ড করা একমাত্র ক্যাটাগরি ৪ হারিকেন।

হারিকেন এবং ঝড়-জলোচ্ছ্বাস বিশেষজ্ঞ মাইকেল লোরির মতে, ‘বেরিল এই অঞ্চলে বছরের এই সময়ের জন্য একটি অত্যন্ত বিপজ্জনক এবং বিরল হারিকেন। আঘাত হানার আগেই এটি ঐতিহাসিক হয়ে উঠেছে।’

ঘূর্ণিঝড় বেরিল রোববার রাত কিংবা সোমবার (১ জুলাই) ভোরে ক্যারিবীয় উইন্ডওয়ার্ড উইন্ডওয়ার্ড দ্বীপপুঞ্জে ভয়াবহ তাণ্ডব চালাতে পারে বলে সতর্ক করেছে ইউএস ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার (এনএইচসি)।

ঘূর্ণিঝড়টি উপকূলের কাছাকাছি বড় এবং ধ্বংসাত্মক ঢেউ নিয়ে আসতে পারে উল্লেখ করে এনএইচসি বলছে, ঘূর্ণিঝড় সতর্কীকরণ এলাকায় যেখানে মূল অংশটি আছড়ে পড়তে পারে, সেখানে এবং তার কাছাকাছি উপকূলীয় অঞ্চলে ৬ থেকে ৯ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ফলে বারবাডোজ, সেন্ট লুসিয়া, সেন্ট ভিনসেন্ট এবং গ্রেনাডাইন দ্বীপপুঞ্জ, গ্রেনাডা ও টোবাগোতে হারিকেন সতর্কতা জারি রয়েছে। সূত্র: সিএনএন

RELATED ARTICLES
Continue to the category

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments