1. sarifhafiz48@gmail.com : livenewsdesk desk : livenewsdesk desk
  2. mehedihasan.mhs078@gmail.com : Arif Molla : Arif Molla
  3. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
  4. livenewsbd24@gmail.com : Mehedi Hasan : Mehedi Hasan
রোমাঞ্চ-নাটক শেষে ৩ রানে জিতল বাংলাদেশ - Livenews24
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কাপড় কিনতে ক্রেতা সেজে এসে কাপড় চুরি, ধরা পড়ে হলো জেল বিএনপি রাজনৈতিক দল নয়, পাকিস্তানের এজেন্ট: শেখ সেলিম ‘কৃষক আমাদের জাতির মেরুদণ্ড’- ড.আবদুস সোবহান গোলাপ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হলো ৪০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে- শাজাহান খান আমার মনে হয় বিরোধীরা চোখ থাকতেও অন্ধ জানুয়ারি থেকে ব্যাংকে ডলার সংকট থাকবে না: সালমান এফ রহমান বিরামপুরে বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ পালিত খবর প্রকাশের পর পলাশবাড়ীতে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরীর কারখানা ভেঙে গুড়িয়ে দিলেন প্রশাসন মেসির জন্য অপেক্ষা ও প্রার্থনা কালকিনিতে দুই চেয়ারম্যানের সংঘর্ষ, বোমার আঘাতে ওসিসহ আহত ১০ সশস্ত্র বাহিনীর শহীদদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা সশস্ত্র বাহিনীর শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতির শ্রদ্ধা জাতির আস্থার প্রতীক হিসেবে গড়ে উঠেছে সশস্ত্র বাহিনী সশস্ত্র বাহিনী জাতির গর্ব ও আস্থার প্রতীক: রাষ্ট্রপতি

রোমাঞ্চ-নাটক শেষে ৩ রানে জিতল বাংলাদেশ

  • প্রকাশিত : রবিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২২
  • ২৬ শেয়ার এবং সংবাদটি পড়েছেন।

অনলাইন ডেস্ক।।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্বে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩ রানের নাটকীয় জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ১৫১ রান তাড়া করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৪৭ রানে থামে জিম্বাবুয়ের ইনিংস।

শেষ ওভারে ১৬ রানের সমীকরণ ছিল আগের ম্যাচে পাকিস্তানকে হারানো জিম্বাবুয়ের সামনে। বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান বল তুলে দিয়েছিলেন মোসাদ্দেক হোসেনের হাতে। মহানাটকীয়তার মধ্যে শেষ হয়েছে ওই ওভার। বাংলাদেশ পেয়েছে বড় স্বস্তির এক জয়।

ব্রিজবেনে রবিবার গ্রুপ-২ এর ম্যাচটিতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমেছিল বাংলাদেশ। পাওয়ার প্লেতে ব্যর্থতার পরও নাজমুল হোসেন শান্তর প্রথম টি-টোয়েন্টি ফিফটিতে লড়ার মতো পুঁজি গড়ে দলটি।

পরে তাসকিন আহমেদ ও মোস্তাফিজুর রহমানের দারুণ বোলিংয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয়। তবে অভিজ্ঞ শন উইলিয়ামস অসাধারণ এক ফিফটিতে ম্যাচটা প্রায় বের করে নিচ্ছিলেন। সাকিব সরাসরি থ্রোয়ে তাকে রান আউট করে বাংলাদেশকে প্রাণ দেন।

শেষ ওভারে মোসাদ্দেক বোলিংয়ে এসে দ্বিতীয় বলেই তুলে নেন উইকেট। কিন্তু রিচার্ড এনগারাভা পর পর দুই বলে চার ও ছক্কা হাঁকালে জিম্বাবুয়ের সামনে জয়ের পথ খুলে যায়।

তবে পঞ্চম বলে এনগারাভাকে নুরুল হাসান সোহান স্টাম্পড করেন। শেষ বলেও ব্লেসিং মুজারাবানিকেও স্টাম্পড করেন সোহান। জয়োল্লাস করে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। তখনও অবশ্য টিভি আম্পায়ার মুজারাবানিকে আউটের সিদ্ধান্ত দেননি।

পরে দেখা যায় স্টাম্প পেরোনোর আগেই বল ধরেছেন সোহান। তাই নো বলের সিদ্ধান্ত আসে। একই সঙ্গে ফের মাঠে নামানো হয় দুই দলকে।

শেষ বলে তখন জিততে হলে ৪ রান নিতে হতো জিম্বাবুয়েকে। যে বলটা ছিল আবার ফ্রি হিট। তবে মোসাদ্দেকের ওই বলটা আর ব্যাটে-বলেই করতে পারেননি মুজারাবানি। তাই শেষ হাসি বাংলাদেশেরই।

নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে আসর শুরু করা বাংলাদেশ দ্বিতীয় জয়ের মুখ দেখল। আগের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে হেরেছিল তারা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে এর আগে একটির বেশি জয় পায়নি বাংলাদেশ।

ম্যাচে রং বদলের ঘটনা ঘটেছে এর আগেও। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে তাসকিনকে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই চার হাঁকিয়ে দারুণ শুরুর ইঙ্গিত দেন ওয়েসলি মাধেভেরে। তবে পরের বলেই থার্ডম্যানে ধরা পড়েন মোস্তাফিজুর রহমানের হাতে।

তৃতীয় ওভারে ক্রেইগ আরভিনও বাউন্ডারি হাঁকানোর পরের বলেই তাসকিনের শিকার হন। মাধেভেরে ৩ বলে ৪ ও আরভিন ৭ বলে ৮ রান করেন।

প্রথম চার ওভার তাসকিন ও হাসান মাহমুদ করার পর পঞ্চম ওভারে আক্রমণে স্পিনার আনেন সাকিব। মোসাদ্দেকের ওই ওভারে ১১ রান তুলেন মিল্টন শুম্বা ও শন উইলিয়ামস। শেষ ‍দুই বলে দুটি চার হাঁকান শন উইলিয়ামস।

ষষ্ঠ ওভারে আক্রমণে এসে প্রথমে শুম্বাকে ফেরান মোস্তাফিজ। পরে ফিরিয়ে দেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সিকান্দার রাজাকে। শুম্বা ১৫ বলে ৮ রান করেন। রাজা রানের খাতা খুলতে পারেননি।

পঞ্চম উইকেট জুটিতে রেজিস চাকাভার সঙ্গে ৩৪ রানের জুটি উপহার দেন উইলিয়ামস। তাতে কিছুটা চাপ কাটে জিম্বাবুয়ের। নিজের দ্বিতীয় স্পেলে বল হাতে নিয়ে এই জুটিও ভাঙেন তাসকিন। ১৯ বলে ১৫ রান করা চাকাভাকে নিজের তৃতীয় শিকার বানান।

এরপর রায়ান বার্লকে সঙ্গে নিয়ে লড়াই জমিয়ে তুলে উইলিয়ামস। শেষ ৩ ওভারে ৪০ রানের সমীকরণ দাঁড়ায় জিম্বাবুয়ের সামনে।

১৮তম ওভারে উইলিয়ামসের ফিফটি পূরণ হওয়ার সঙ্গে জিম্বাবুয়ে মোট ১৪ রান তুললে ম্যাচ জমে যায় আরও। শেষ দুই ওভারে ২৬ রানের সমীকরণ দাঁড়ায় জিম্বাবুয়ের সামনে। ঠিক সেই পরিস্থিতিতে উইলিয়ামসকে সাকিবের রান আউট করে ফেরানো ম্যাচের অন্যতম টার্নিং পয়েন্ট বলতে হবে।

৪২ বলে ৮ চারে ৬৪ রান করেছেন উইলিয়ামস। ষষ্ঠ উইকেটে তার সঙ্গে ৬৩ রানের জুটি উপহার দেওয়া রায়ান বার্ল ২৫ বলে অপরাজিত ২৭ রান করেন।

বাংলাদেশের পক্ষে তাসকিন সর্বাধিক ৩ উইকেট নেন। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন মোসাদ্দেক ও মোস্তাফিজ।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। শুরুটা মোটেও ভালো করতে পারেনি টাইগাররা। পাওয়ার প্লেতে পারেনি প্রত্যাশা অনুযায়ী রান তুলতে। সৌম্য ও লিটনকে হারিয়ে মাত্র ৩২ রান তুলতে পারে। প্রথম ১০ ওভারে বাংলাদেশের রান ছিল ৬৩। তখন পর্যন্ত লড়াকু পুঁজি নিয়েও ছিল সংশয়।

পরে নাজমুল হোসেন শান্ত ফিফটি তুলে নিলে ৭ উইকেটে ১৫০ রানের পুঁজি গড়তে সক্ষম হয় সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বাধীন দল। ৪৫ বলে ফিফটি স্পর্শ করা শান্ত শেষ পর্যন্ত ৫৫ বলে ৭১ রান করেন। ৭টি চারের সঙ্গে হাঁকান এক ছক্কা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান আফিফ হোসেনের। ১৯ বলে ১টি করে চার ও ছক্কায় ২৯ রান করেন তিনি। শেষ ১০ ওভারে বাংলাদেশ তুলে ৮৭ রান।

জিম্বাবুয়ের পক্ষে সর্বাধিক ২টি করে উইকেট নিয়েছেন ব্লেসিং মুজারাবানি ও রিচার্ড এনগারাভা। ম্যাচসেরা হয়েছেন তাসকিন আহমেদ।

আপনার পছন্দের লিংকের মাধ্যমে সংবাদটি শেয়ার করুন, আমাদের সাথেই থাকুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021
Design & Development By : JM IT SOLUTION